দৈনিক চোখের আলো

মানিকগঞ্জে দুই ছেলের হাতে পিতা খু'ন, মসজিদে জমি দান করাই কাল হলো বাবার ।

 


মানিকগঞ্জে জন্মদাতা পিতাকে হাতুড়ি দিয়ে নির্মমভাবে পিটিয়ে খুন করেছে দুই ছেলে। রবিবার সকালে সদর উপজেলার চর উকিয়ারা গ্রামে লোমহর্ষক এই ঘটনাটি ঘটেছে।

নিহতের বড় ছেলে মো. খবির হোসেন (৪০) ও তার স্ত্রী মোসাম্মৎ সাহেরা (৩০), ছোট ছেলে মো. খোরশেদ আলী (৩৫) ও তার স্ত্রী রুমা (২৫) এবং নিহত আরশেদ আলীর প্রবাসী মেয়ে আসমানীর বড় ছেলে (নাতি) আহাদ পরস্পরের যোগসাজসে এই হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারনা করছে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, সদর উপজেলার চর উকিয়ারা গ্রামের মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে আরশেদ আলী ১৫/২০ দিন আগে ১০শতাংশ জমি মসজিদের নামে দান করেন। এ নিয়ে ছেলে মেয়েদের সাথে আরশেদের পারিবারিক কলহ দেখা দেয়। 

রবিবার সকালে আরশেদ জমিতে সেচ দেওয়ার জন্য পার্শ্ববর্তী মেশিন ঘরে যান। এসময় আরশেদের বড় ছেলে খবির হোসেন ও ছোট ছেলে খোরশেদ আলমের সাথে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে কথা কাটাকাটি হয়। পূঞ্জিভূত ক্ষোভের বহিঃপ্রকাশ হিসেবে আরশেদকে তারা হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যা করে।

এ ঘটনায় অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) কামরুল ইসলাম ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, জমিসংক্রান্ত বিরোধের জেরেই এই হত্যাকান্ডের ঘটনা ঘটেছে। অভিযুক্ত দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে বাকি একজন নিহতের বড় ছেলেকে গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।

রবিবার সকাল ৮ টার দিকে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার চর উকিয়ারা গ্রামে এই ঘটনা ঘটে।

নিহত আরশেদ আলী ওই গ্রামের মৃত সৈয়দ আলীর ছেলে।

বিষয়টি মানিকগঞ্জের সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরুল ইসলাম নিশ্চিত করেছেন।

এঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য নিহতের ছোট ছেলেসহ চারজনকে আটক করেছে। আটককৃতরা হলেন- বড় ছেলের স্ত্রী সাহেরা (৩০), ছোট ছেলে মো. খোরশেদ আলী (৩৫), তার স্ত্রী রুমা (২৫) ও নাতি মোহাম্মদ আহাদ (২৫)। ঘটনার পর থেকে বড় ছেলে পলাতক রয়েছে।

পুলিশ জানায়, ১৫/২০ দিন আগে নিহত আরশেদ আলী বাড়ির পাশে চর উকিয়ারা জামে মসজিদের নামে ১০ শতাংশ জমি মৌখিকভাবে দান করেন। কবরস্থানে জমি দানকে কেন্দ্র করে ছেলেদের সাথে তার কলহের সৃষ্টি হয়। এরই জের ধরে আজ সকালে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে নিহতের বড় ছেলে মো. খবির হোসেন, বড় ছেলের স্ত্রী সাহেরা, ছোট ছেলে মো. খোরশেদ আলী, তার স্ত্রী রুমা, নাতি মোহাম্মদ আহাদ আরশেদ আলীকে লোহার হাতুড়ি দিয়ে এলোপাতাড়িভাবে পিটিয়ে হত্যা করে।

মানিকগঞ্জের সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার কামরুল ইসলাম জানান, বেলা ১১ টার দিকে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা হাসপাতাল মর্গে পাঠিয়েছে। তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।


Post a Comment

0 Comments