দৈনিক চোখের আলো

ধামরাইয়ের কামার পাড়া গ্রামে বৃদ্ধের উপর সন্ত্রাসী হামলা ও তার ছেলেকে হত্যার হুমকি।

 


ঢাকা জেলার ধামরাই থানার অন্তর্গত কামার পাড়া গ্রামের কিতাব আলী মন্ডলকে হত্যার উদ্দেশ্যে পাশ্ববর্তী বাড়ির শওকত আলী মন্ডল, তার ছেলে জব্বার হোসেন, মেয়ে শহীদা আক্তার ও তার স্ত্রী আয়না মতি, তার ভাই কদম আলী মন্ডল ও তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগমসহ  কিছু আ্ত্বীয় মিলে সন্ত্রাসী হামলা চালায়।

 সবাই মিলে লাঠি দিয়ে আঘাত করতে থাকলে বৃদ্ধ কিতাব আলী মন্ডল মাটিতে লুটিয়ে পড়েন।মৃতের মতো পড়ে থাকতে দেখেও তারা আঘাত করা বন্ধ না করে মারতেই থাকে। অবশেষে স্থানীয় কিছু মানুষের সহায়তায় পাশ্ববর্তী জেলা মানিকগঞ্জের সাটুরিয়া হাসপাতালে নেওয়া হলে অল্পের জন্য প্রাণে বেঁচে যান। তবে তার শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক।




যতটুকু জানা গেছে জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জেরে এই সন্ত্রাসী হামলা চালানো হয় এবং নেপথ্যে  মোগর আলী (মৃত) মন্ডলের চার ছেলে এর সাথে জড়িত। বিষয়টি ঘেঁটে দেখা গেছে

এর আগে মৃত মোগর আলী মন্ডলের চার ছেলে মোস্তফা, আলতাফ হোসেন, আবুল হোসেন , মোজাম্মেলসহ তারা ভাই ভাতিজা মিলে কয়েক দফা বৃদ্ধ কিতাব আলী মন্ডলের উপর হামলা করে। 

মোগর আলী মন্ডলের (মৃত) ভাগিনা হিসেবে বৃদ্ধ কিতাব আলী মন্ডল কয়েক বিঘা জমির মালিক হন। কিতাব আলী মন্ডল ছোট বেলায় মা বাবা হারিয়ে এতিম হয়ে যাওয়ার পর জীবিত থাকা অবস্থায় মোগর আলী মন্ডল(মৃত) ও তার ছেলেরা জালিয়াতি করে কিতাব আলী মন্ডলের জমি দখল করে নেয়।

 তার পরেও কিতাব আলী মন্ডল বৈধ দলিলাদি থাকার কারনে কিছু জমির মালিক হন। কিন্তু লাঠি আর ক্ষমতার জুড়ে তারা দিতে চাচ্ছে না। মাঝে মধ্যেই বৃদ্ধ কিতাব আলী মন্ডলের উপর বর্বর হামলা চালায়।

কিতাব আলী মন্ডলের বাড়ির দক্ষিণ পাশে ডুবা (পুকুর) মূলত কিতাব আলী মন্ডলের জায়গা যা মোগর মন্ডলের ছেলেরা বার বার দখল করতে চাচ্ছে। তাদের কোন দলিল না থাকলেও লাঠির ভয় এবং হত্যার হুমকি দিয়ে দখলের চেষ্টা করে আসছে।

এছাড়া কিতাব আলী মন্ডলের ছেলে আনিসুর রহমান চাচাতো ভাই শহীদুল্লার কাছে থেকে কিছু জমি ক্রয় করে যা মোগর আলী মন্ডলের ছেলেরা কোন ভাবেই দিতে চাচ্ছে না। 

কয়েক দফা কাওয়ালিপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রে বসে মিমাংসা করার কথা থাকলেও তারা বসে নি। বরং তারা বলে বেড়ায় বৃদ্ধ কিতাব আলী মন্ডল ও তার ছেলে আনিসুর রহমানকে হত্যা করে ফেলবে। 

বৃদ্ধ কিতাব আলী মন্ডলের ছেলে আনিসুর রহমানের কাছে থেকে জানা যায় যেকোন সময় তাকে হত্যা করে ফেলবে বলে হুমকি দিয়ে আসছে বিশেষ করে মোগর মন্ডলের ছেলে আবুল হোসেন, আলতাফ হোসেন,ও বড় ছেলে মোস্তফা। 

আবুল হোসেন এলাকায় বিভিন্ন চুরি সহ অসামাজিক কাজে লিপ্ত থাকে। ওরা সমস্ত ভাই মিলে এলাকার সমস্ত মানুষকে লাঠির জুড়ে ভিতসন্ত্রস্ত করে রাখে। তাদের ভয়ে কেউ মুখ খুলার সাহস পায় না।


পাশ্ববর্তী এই দুই হায়েনা পরিবারের বর্বর শওকত আলী মন্ডল, তার ছেলে জব্বার হোসেন, মেয়ে শহীদা আক্তার ও তার স্ত্রী আয়না মতি, ভাই কদম আলী মন্ডল ও তার স্ত্রী মনোয়ারা বেগম এবং মোগর আলী (মৃত)মন্ডলের ছেলে মোস্তফা, আলতাফ হোসেন, আবুল হোসেন , মোজাম্মেল এর হাত থেকে কিতাব আলী মন্ডল ও তার ছেলেকে বাঁচাতে এলাকার মানুষের সহায়তা ও ধামরাই থানা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করছি। 



Post a Comment

0 Comments